PC Header Top Ads

Type Here to Get Search Results !

Display Responsive Ads

প্রাচীন প্রস্তর যুগ সম্বন্ধে আলোচনা করো?

 প্রাচীন প্রস্তর যুগ সম্বন্ধে আলোচনা করো?






সময়কালঃ


প্রাচীন প্রস্তর যুগের শুরু হয় অন্তত 50 হাজার বছর আগে এবং শেষ হয় প্রায় 15,000 খ্রিস্টপূর্বাব্দে। পিকিং মানব, জাভা মানব, আটলানথ্রোপাস মানব (আলজেরিয়া), ওলডুভাই মানব (তাঞ্জানিয়া), নিয়ানডারথাল মানব-সহ বিভিন্ন শাখার হোমো ইরেক্টাস অর্থাৎ প্রায়-মানুষেরা প্রাচীন প্রস্তর যুগের অন্তর্ভুক্ত ছিল।


হাতিয়ারঃ


এ যুগের মানুষ বিভিন্ন ধরনের পাথর ও হাড়ের তৈরি হাতিয়ার ব্যবহার করত এবং ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র গোষ্ঠীবদ্ধ হয়ে বসবাস করত। দক্ষিণ আফ্রিকার অস্ট্রালোপিথেকাস নামে মানবগোষ্ঠী সর্বপ্রথম পাথরের হাতিয়ারের ব্যবহার শুরু করে। এ যুগের মানুষ প্রকৃতি থেকে যে আকারের পাথরকে পেত কোনো আকারগত পরিবর্তন না করেই সেটিকৈ হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করত। তবে কোনো কোনো ক্ষেত্রে পাথর ভেঙে ধারালো ও তীক্ষ্ণ করার চেষ্টা করত বলেও মনে করা হয়। তারা একই হাতিয়ার দিয়ে মাংস কাটা, কাঠ কাটা, শিকার করা প্রভৃতি বিভিন্ন কাজ করত। প্রথমদিকের এই সাধারণ হাতিয়ার হাত-কুঠার নামে পরিচিত। ক্রমে তারা পাথরের বল্লম, ছুরি, ছুঁচ, হারপুন, প্রভৃতি হাতিয়ার তৈরি করতে শুরু করে। এ যুগের হাতিয়ার গুলো হত অমসৃণ এবং বৃহদাকার। এ যুগের শেষদিকে মানুষ তিরধনুক আবিষ্কার করে।


জীবিকাঃ


পশু শিকার করে পশুর মাংস সংগ্রহ করাই ছিল প্রাচীন প্রস্তর যুগের মানুষের প্রধান জীবিকা। প্রথমদিকে ছোটো আকারের প্রাণী শিকার করলেও অভিজ্ঞতা বৃদ্ধির সঙ্গে সঙ্গে তারা দলবদ্ধ হয়ে ম্যামথ, বাইসন, বলগা হরিণ প্রভৃতি বড়ো পশু শিকারে অভ্যস্ত হয়ে উঠেছিল। এ ছাড়া এ যুগের মানুষ বনে জঙ্গলে ঘুরে গাছের ফলমূল সংগ্রহ করত, পাখির ডিম সংগ্রহ করত, মাছ ধরত ইত্যাদি। আগুনের ব্যবহার জানত না বলে তারা কাঁচা মাংস খেত


বাসস্থানঃ


আদিম মানুষ প্রাচীন প্রস্তর যুগের প্রথমদিকে খোলা আকাশের নীচে বসবাস করত। পরবর্তীকালে তারা গুহার ভেতরে বা পাহাড়ের ঝুলন্ত পাথরের নীচে বসবাস করত। পরবর্তীকালে তারা গাছের ডালপালা, লতাপাতা, পশুর চামড়া প্রভৃতি দিয়ে তাদের আস্তানা তৈরি করত। তারা গাছের ছাল বা পশুর চামড়া পরিধান করত।


সমাজজীবনঃ


প্রাচীন প্রস্তর যুগ থেকেই মানুষ দলবদ্ধ হয়ে বসবাস করতে শুরু করে। দলবদ্ধ হয়ে বসবাস ও জীবিকা নির্বাহের ফলে আদিম মানুষের মধ্যে সামাজিক ধারণা গড়ে উঠেছিল। কেউ কেউ মনে করেন যে, এই যুগে আদিম মানুষের সমাজে পরিবারও গড়ে উঠেছিল। 


মাতৃতান্ত্রিক সমাজঃ


এ যুগের সমাজ ছিল মাতৃতান্ত্রিক। পরিবার ও সমাজ জীবনে পুরুষের তুলনায় নারীদের প্রাধান্য বেশি ছিল। নারীদের এই প্রাধান্য অন্তত নব্যপ্রস্তর যুগ পর্যন্ত অব্যাহত ছিল।


অস্তিত্বের নিদর্শনঃ


আফ্রিকার গ্রে রিফট উপত্যাকায়, ইউরোপের কিছু অঞ্চলে, ভারতের পাঞ্জাবের সোয়ান নদী উপত্যাকা ও মাদ্রাজে প্রাচীন প্রস্তর যুগের মানুষের অস্তিত্ব ছিল বলে জানা যায়। আশ্চর্যের বিষয় যে, এ যুগে পৃথিবীর বিভিন্ন স্থানের মানুষগুলি আলাদা হলেও তাদের তৈরি হাতিয়ার গুলিতে অদ্ভুত মিল লক্ষ করা যায়।



আরো পড়ুনঃ

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্যসমূহ
* Please Don't Spam Here. All the Comments are Reviewed by Admin.

Top Post Ad

Below Post Ad

Ads Section